দিনটি ছিলো ২০১৩ সালের ১২ ই সেপ্টেম্বর । আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পুত্র সজিব ওয়াজেদ জয় সেদিন বলেছিলেন, মানুষ চমক পছন্দ করে।ক্ষমতায় থেকে সাফল্য দেখানো সহজ নয়। তারপরও এবারো চমক দেখানো হবে। আগামী তিন দিন একটু খেয়াল রাখুন। চমক দেখতে পাবেন। আমরা বিরোধী দলের অপপ্রচার মোকাবেলা ও সরকারের সফলতা জনগণের সামনে তুলে ধরতে ভিন্ন রকম কৌশল নিয়েছি।
হ্যাঁ জয় সাহেব সত্যি চমক দেখিয়েছিলেন । ৩ দিন পরের সেই চমক কি জানেন ? তিনি বাংলাদেশের মানুষের প্রিয় ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান কে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘রূপকল্প ২০২১, গত ৫ বছরের অর্জন, আগামী ৫ বছরের অঙ্গীকার’ শীর্ষক এ অনুষ্ঠানে আওয়ামীলীগ হিসেবে পরিচিত করিয়ে দিতে চেয়েছিলো বাংলাদেশের মানুষের কাছে । সে রাজি না হওয়ায় তার পেছনে আওয়ামীলীগ সুকৌশলে ভারতীয় দালাল পাপনকে লাগিয়ে দেয়।
টি-২০ ওয়ার্ল্ড-কাপ ২০১৪ তে ভারতের সাথে বাংলাদেশ জিততে না পারার জন্য সামান্য অপরাধের শাস্তি হিসেবে সুকৌশলে সাকিবকে ৩ ম্যাচের জন্য সাসপেন্ড করে বি সি বি ।
এর পর সাকিবের নামে শুরু হল একের পর এক অভিযোগ। সাকিব আইপিএল, বিগব্যাশ, সিপিএল, শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড সব জায়গায় খেলে এল। কিন্তু কোথাও তার নামে একটা অভিযোগ শুনতে পেলাম না, এমন কি বাংলাদেশের কোন টিম-মেটেরও কোন অভিযোগ নেই তার বিরুদ্ধে। যতো অভিযোগ শুধুই আওয়ামী লীগের এমপি পাপন আর অন্য বিসিবি কর্মকর্তাদের।
সবশেষ সংবাদ সাকিবের উপর আওয়ামীলীগে যোগ না দেওয়ার জন্য প্রতিশোধ নেওয়া স্বরূপ সম্পূর্ণ বিনা অপরাধে আজ সাকিবকে ৬ মাসের জন্য বহিষ্কার করে ভারতীয় দালাল পাপনের বি সি বি ।
আসুন প্রতিবাদ করি । বাংলার জান প্রাণ সাকিবের পাশে কি এই দুঃসময়ে আমরা থাকবোনা?