স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহেদ মালেক বৃহস্পতিবারও বিদেশ থেকে আসা সবাইকে ১৪ দিন সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন৷ জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) আগেই এই আহ্বান জানিয়েছে৷ বৃহস্পতিবার তারা দেশে ফেরা সবাইকে যতটা সম্ভব নিজের অবস্থানে থাকার আহ্বান জানিয়েছে৷ এমনকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বৃহস্পতিবার বিদেশ ফেরতদের নিজ উদ্যোগে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলেছেন৷

বৃহস্পতিবার সংক্রামক ব্যাধি এবং এ সংক্রান্ত আইন ও নীতিমালা নিয়ে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়৷ তবে বলা হয়েছে, সংক্রামক ব্যাধির তথ্য গোপন করলে ২ মাসের কারাদণ্ড হতে পারে৷

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিদেশ থেকে আসা কিছু প্রবাসী বা তাদের সংর্স্পশে যারা আসছেন, তারা কোয়ারেন্টাইনের শর্ত সঠিকভাবে মানছেন না৷ অনেকেই মিথ্যা ও গুজব রটিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন৷ অধিদপ্তর তাদের সবাইকে আইন অনুযায়ী এবং সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল আইন ২০১৮-এর শর্ত পালন করার অনুরোধ করছে, এর ব্যত্যয় হলে শাস্তিমূলক ধারা প্রয়োগ করা হবে৷

যদি কেউ সংক্রামক রোগ সর্ম্পকে মিথ্যা বা ভুল তথ্য দেয়, তাহলে সেটি অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে৷ আর তার জন্য দুই মাসের কারাদণ্ড বা ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারেন৷

জেলায় জেলায় সিভিল সার্জন এবং প্রশাসন এখন বিদেশ থেকে যারা আসছেন তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন৷ যাকেই পাচ্ছেন সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে পাঠাচ্ছেন৷ কিন্তু অনেকেই এটা এড়িয়ে যেতে চাইছেন, যা বড় ধরণের সংকট তৈরি করতে পারে৷