প্রায় সকলের মুখে এখন মাস্ক৷ এ মাস্ক চেহারা ঢাকার মুখোশ নয়, করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সার্জিক্যাল মাস্ক৷ মাস্কে ঢাকা পড়েছে মুখ, এ মুখগুলো ভিন্ন ভিন্ন৷ কিন্তু প্রতিটা মুখে লটকে থাকা যে আতঙ্ক- সেখানে কোন ভিন্নতা নেই৷

অধিকাংশ ওষুধের দোকানের কাউন্টারে বা দৃশ্যমান কোন জায়গায় নোটিশ টাঙানো- ‘মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার নেই’৷ ফুটপাতে অবশ্য মাস্ক পাওয়া যায়, তবে সেগুলো খুবই নিম্নমানের, এবং দামও বেশি৷ আগে যেটা দশ টাকায় পাওয়া যেত, এখন সেটা ত্রিশ টাকা৷ তাহলে ফার্মেসিতে নেই কেন? এক ফার্মেসি মালিক বললেন- ভাই, আমাদের তো বিক্রি করলেই লাভ৷ মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের চাহিদা এখন খুবই বেশি৷ কিন্তু তারপরও আমরা ইচ্ছা করেই রাখছি না৷ চাহিদা বেশি বলে আমাদেরকে বেশি দামে কিনতে হচ্ছে, অথচ বিক্রির সময় দাম একটু বেশি চাইলেই ঝামেলায় পড়তে হয়৷ অনেক জায়গায় র‌্যাব অভিযান চালিয়েছে৷ রীতিমত বেইজ্জতি ব্যাপার৷